ঢাকা ১২:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইসির নিবন্ধন পেল হুদার ‘তৃণমূল বিএনপি’

  • অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:১৫:৪৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • 57

নতুন রাজনৈতিক দল ‘তৃণমূল বিএনপি’ নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিবন্ধন পেয়েছে। ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার নেতৃত্বাধীন দলটির নিবন্ধন দিয়ে বৃহস্পতিবার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে ইসি।
ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম স্বাক্ষরিত এ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রিট পিটিশন নং-১০৯৪২/২০১৮ এর বিগত ৬/১১/২০১৮ তারিখের রায় ও আদেশ এবং আপিল বিভাগে দায়েরকৃত Civil Petition for leave to Appeal No. 3024 of 2019 with Civil Petition for leave to Appeal No. 3023 of 2019 এর ওপর আপিল বিভাগের প্রদত্ত রায় ও আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে The Representation of the People Order, 1972 Chapter: VIA এর বিধান অনুযায়ী প্রধান কার্যালয় ৩৩ তোপখানা রোড, ১৫/সি মেহেরবা প্লাজা (১১ তলা), পল্টন ঢাকা-১০০০ এ অবস্থিত তৃণমূল বিএনপিকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন রাজনৈতিক দল হিসেবে নিবন্ধন করিয়াছে। ওই দলের জন্য সোনালী আঁশ প্রতীক সংরক্ষণ করা হইয়াছে এবং উহার নিবন্ধন নং-০৪৫, তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩।’
‘তৃণমূল বিএনপি’ দলটির প্রতিষ্ঠাতা বিএনপির সাবেক প্রভাবশালী নেতা ও মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। তিনি বিএনপির প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে দলটিতে যুক্ত হন। দলের নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে হুদাকে সদস্য করেছিলেন জিয়াউর রহমান। পরে খালেদা জিয়াও হুদাকে দলের স্থায়ী কমিটিতে রেখেছিলেন। ১৯৯১ সালে ও ২০০১ সালে খালেদা জিয়ার সরকারে মন্ত্রী ছিলেন হুদা। তবে মাঝে একবার দল থেকে বহিষ্কৃত হয়ে পুনরায় ফিরেছিলেন এই নেতা।
২০১২ সালে আবার বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে বিএনএফ নামে নতুন একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেন নাজমুল হুদা। পরে সেই দল থেকে তাকেই বহিষ্কার করে ২০১৪ সালে জাতীয় নির্বাচন করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন দলটির প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ।
এরপর বাংলাদেশ ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (বিএনএ) ও বাংলাদেশ মানবাধিকার পার্টি (বিএমপি) নামে দুটি নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করে আওয়ামী লীগের জোটে ভেড়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন হুদা। পরে ‘তৃণমূল বিএনপি’ নামে নতুন দল গঠন করেন, যা এখন নিবন্ধন পেল।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

ইসির নিবন্ধন পেল হুদার ‘তৃণমূল বিএনপি’

আপডেট সময় : ০৫:১৫:৪৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নতুন রাজনৈতিক দল ‘তৃণমূল বিএনপি’ নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিবন্ধন পেয়েছে। ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার নেতৃত্বাধীন দলটির নিবন্ধন দিয়ে বৃহস্পতিবার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে ইসি।
ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম স্বাক্ষরিত এ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ‘বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রিট পিটিশন নং-১০৯৪২/২০১৮ এর বিগত ৬/১১/২০১৮ তারিখের রায় ও আদেশ এবং আপিল বিভাগে দায়েরকৃত Civil Petition for leave to Appeal No. 3024 of 2019 with Civil Petition for leave to Appeal No. 3023 of 2019 এর ওপর আপিল বিভাগের প্রদত্ত রায় ও আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে The Representation of the People Order, 1972 Chapter: VIA এর বিধান অনুযায়ী প্রধান কার্যালয় ৩৩ তোপখানা রোড, ১৫/সি মেহেরবা প্লাজা (১১ তলা), পল্টন ঢাকা-১০০০ এ অবস্থিত তৃণমূল বিএনপিকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন রাজনৈতিক দল হিসেবে নিবন্ধন করিয়াছে। ওই দলের জন্য সোনালী আঁশ প্রতীক সংরক্ষণ করা হইয়াছে এবং উহার নিবন্ধন নং-০৪৫, তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩।’
‘তৃণমূল বিএনপি’ দলটির প্রতিষ্ঠাতা বিএনপির সাবেক প্রভাবশালী নেতা ও মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। তিনি বিএনপির প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে দলটিতে যুক্ত হন। দলের নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে হুদাকে সদস্য করেছিলেন জিয়াউর রহমান। পরে খালেদা জিয়াও হুদাকে দলের স্থায়ী কমিটিতে রেখেছিলেন। ১৯৯১ সালে ও ২০০১ সালে খালেদা জিয়ার সরকারে মন্ত্রী ছিলেন হুদা। তবে মাঝে একবার দল থেকে বহিষ্কৃত হয়ে পুনরায় ফিরেছিলেন এই নেতা।
২০১২ সালে আবার বিএনপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে বিএনএফ নামে নতুন একটি রাজনৈতিক দল গঠন করেন নাজমুল হুদা। পরে সেই দল থেকে তাকেই বহিষ্কার করে ২০১৪ সালে জাতীয় নির্বাচন করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন দলটির প্রতিষ্ঠাকালীন প্রধান সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ।
এরপর বাংলাদেশ ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (বিএনএ) ও বাংলাদেশ মানবাধিকার পার্টি (বিএমপি) নামে দুটি নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করে আওয়ামী লীগের জোটে ভেড়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন হুদা। পরে ‘তৃণমূল বিএনপি’ নামে নতুন দল গঠন করেন, যা এখন নিবন্ধন পেল।