ঢাকা ০৩:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় ৩ টি চোরাই মটর সাইকেল উদ্ধার, চোর চক্রের ৬ সদস্য আটক

চুয়াডাঙ্গায় অভিযান চালিয়ে ৩টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ চোর চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চুরি হওয়া মটর সাইকেল উদ্ধার করতে সর্বচ্চ শ্রম দিয়ে সাহসীকতার ভুমিকা পালন করেছে চুয়াডাঙ্গা পুলিশের একটি টিম। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ৩ এ এপ্রিল রোজ সোমবার যশোরের কোতয়ালী থানার চাঁদপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আসামিরা হলেন- যশোর কোতয়ালী থানার চাঁদপাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফা শেখের ছেলে আল আমিন (৩৪), যশোর কোতয়ালী থানার চাঁদপুর গ্রামের টিপু শেখের ছেলে জুয়েল রানা (৩৩), যশোর কোতয়ালী থানার হামিদপুর গ্রামের আবু হানিফ হাওলাদার (৫৫), মাগুরা জেলার মোহাম্মদপুর উপজেলার মাইজপাড়া গ্রামের মৃত হাবিল মোল্যার ছেলে সেলিম মোল্যা (২৫), মাগুরা জেলার মোহাম্মদপুর উপজেলার পারভাটপাড়া গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে কামরুজ্জামান আরমান (২৫), মাগুরা জেলার স্টেডিয়ামপাড়ার মোস্তফা আল আজাদের ছেলে জুনায়েদ হোসেন (৩৪)৷ খুবই কৌশলে এই চিহ্নিত চোর চক্রের ৬ সদস্য কে আটক করা হয়। সাথে ৩ টি চোরাই মটর সাইকেল সহ।
জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন বলেন, গত ২৬ মার্চ জেলা সদর হাসপাতাল রোড থেকে মোটরসাইকেল চুরি হয়। তারই প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলের সিসিটিভির ফুটেজ পর্যালোচনা করে চোর সনাক্ত করে গোপনসংবাদ ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় যশোরে অভিযান চালিয়ে প্রথমে আল আমিন (৩৪) কে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্য নিয়ে পর্যায়ক্রমে আরও পাঁচসদস্যকে গ্রেফতার করা হয় এবং চুরি যাওয়া ৩টি লাল কালো বাজাজ পালসার মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।এরা হলো বড় ধরনের মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। এরা দেশের বিভিন্ন জেলায় মোটরসাইকেল চুরি করে অন্য জেলায় বিক্রি করে। প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এসব তথ্য দেয়া হয়।
প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিসুজ্জামান, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহাবুর রহমান কাজল।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গায় ৩ টি চোরাই মটর সাইকেল উদ্ধার, চোর চক্রের ৬ সদস্য আটক

আপডেট সময় : ০৯:৩৫:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ এপ্রিল ২০২৩

চুয়াডাঙ্গায় অভিযান চালিয়ে ৩টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ চোর চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। চুরি হওয়া মটর সাইকেল উদ্ধার করতে সর্বচ্চ শ্রম দিয়ে সাহসীকতার ভুমিকা পালন করেছে চুয়াডাঙ্গা পুলিশের একটি টিম। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ৩ এ এপ্রিল রোজ সোমবার যশোরের কোতয়ালী থানার চাঁদপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আসামিরা হলেন- যশোর কোতয়ালী থানার চাঁদপাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফা শেখের ছেলে আল আমিন (৩৪), যশোর কোতয়ালী থানার চাঁদপুর গ্রামের টিপু শেখের ছেলে জুয়েল রানা (৩৩), যশোর কোতয়ালী থানার হামিদপুর গ্রামের আবু হানিফ হাওলাদার (৫৫), মাগুরা জেলার মোহাম্মদপুর উপজেলার মাইজপাড়া গ্রামের মৃত হাবিল মোল্যার ছেলে সেলিম মোল্যা (২৫), মাগুরা জেলার মোহাম্মদপুর উপজেলার পারভাটপাড়া গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে কামরুজ্জামান আরমান (২৫), মাগুরা জেলার স্টেডিয়ামপাড়ার মোস্তফা আল আজাদের ছেলে জুনায়েদ হোসেন (৩৪)৷ খুবই কৌশলে এই চিহ্নিত চোর চক্রের ৬ সদস্য কে আটক করা হয়। সাথে ৩ টি চোরাই মটর সাইকেল সহ।
জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন বলেন, গত ২৬ মার্চ জেলা সদর হাসপাতাল রোড থেকে মোটরসাইকেল চুরি হয়। তারই প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলের সিসিটিভির ফুটেজ পর্যালোচনা করে চোর সনাক্ত করে গোপনসংবাদ ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় যশোরে অভিযান চালিয়ে প্রথমে আল আমিন (৩৪) কে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্য নিয়ে পর্যায়ক্রমে আরও পাঁচসদস্যকে গ্রেফতার করা হয় এবং চুরি যাওয়া ৩টি লাল কালো বাজাজ পালসার মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।এরা হলো বড় ধরনের মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। এরা দেশের বিভিন্ন জেলায় মোটরসাইকেল চুরি করে অন্য জেলায় বিক্রি করে। প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এসব তথ্য দেয়া হয়।
প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিসুজ্জামান, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহাবুর রহমান কাজল।