ঢাকা ০৫:০৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধুনটে বজ্রপাতে শিশুর মৃত্যু

বগুড়ার ধুনটে বজ্রপাতে রহমাত আলী জেহা মিয়া (১১) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের জয়শিং গ্রামের আলম মন্ডলের ছেলে এবং ওই গ্রামের রতনগাঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার দুপুরে বজ্রপাতে শিশুটির মৃত্যু হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃষ্টির সময় শিশু জোহা তার বাবার সাথে বাঙ্গলী নদীর তীরবর্তী মাঠে খড় সংরক্ষণ কাজে সহযোগিতা করছিলো। সে সময় হঠাৎ বজ্রপাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মৃত অবস্থায় বাড়িতে নিয়ে আসে।
খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানে আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যাবস্থাপনা তহবিল হতে ১০ হাজার টাকা আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন। এসময় পিআইও কর্মকর্তা আব্দুল আলিম, স্থানীয় ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান সুজাউদ্দৌলা রিপন উপস্থিত ছিলেন।
ধুনট থানার এসআই হায়দার আলী জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেছি। ভিকটিমের মৃত্যুর ব্যাপারে কোন অভিযোগ না থাকায় মৃতদেহ বিনা ময়নাতদন্তে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

ধুনটে বজ্রপাতে শিশুর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০১:৪০:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ মে ২০২৩
বগুড়ার ধুনটে বজ্রপাতে রহমাত আলী জেহা মিয়া (১১) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সে উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের জয়শিং গ্রামের আলম মন্ডলের ছেলে এবং ওই গ্রামের রতনগাঁ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার দুপুরে বজ্রপাতে শিশুটির মৃত্যু হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃষ্টির সময় শিশু জোহা তার বাবার সাথে বাঙ্গলী নদীর তীরবর্তী মাঠে খড় সংরক্ষণ কাজে সহযোগিতা করছিলো। সে সময় হঠাৎ বজ্রপাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মৃত অবস্থায় বাড়িতে নিয়ে আসে।
খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানে আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং ত্রাণ ও দূর্যোগ ব্যাবস্থাপনা তহবিল হতে ১০ হাজার টাকা আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন। এসময় পিআইও কর্মকর্তা আব্দুল আলিম, স্থানীয় ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান সুজাউদ্দৌলা রিপন উপস্থিত ছিলেন।
ধুনট থানার এসআই হায়দার আলী জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেছি। ভিকটিমের মৃত্যুর ব্যাপারে কোন অভিযোগ না থাকায় মৃতদেহ বিনা ময়নাতদন্তে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।