ঢাকা ০১:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধুনটে খড়ি কুড়াতে গিয়ে তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষার্থী ধর্ষিত।

মোঃ সুমন হোসেন, ধুনট প্রতিনিধি:

বগুড়ার ধুনটে খড়ি কুড়াতে গিয়ে ১০ বছরের তৃতীয় শ্রেনীর এক শিক্ষার্থী ধর্ষিত হয়েছে। গত ২৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুর ৩ টায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত ৮ ফেব্রুয়ারী বুধবার রাতে ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে সামাদ আলী (৬০) নামের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলাসূত্রে জানাগেছে, ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী ধুনট উপজেলার গোসাইবাড়ী ইউিনিয়নের বড়বিলা গ্রামের জনৈক এক ব্যক্তির মেয়ে ও স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। গত ২৬ জানুয়ারী দুপুর ৩ টায় মেয়েটি পাশ্ববর্তী এলাকার একটি গাছের বাগানে চুলার জ্বালানি হিসেবে ব্যবহারের জন্য খড়ি কুড়াতে যায়।

এসময় প্রতিবেশি মৃত আফসার আলীর ছেলে সামাদ আলী ওই শিশু মেয়েটিকে ফুসলিয়ে তার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। মেয়েটির চিৎকারে প্রতিবেশিরা এসে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। গত ৮ ফেব্রুয়ারী মেয়েটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে বগুড়া জেলা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। অপরদিকে ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে দফায় দফায় বৈঠক ও মেয়েটির দরিদ্র পরিবারকে হুমকি-ধামকির তোয়াক্কা না করে বুধবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সামাদ আলীর বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করে শিক্ষার্থীর বাবা।

এ বিষয়ে ধুনট থানার এসআই আসাদুজ্জামান জানান, মেয়েটির বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলাটি রেকর্ডভুক্ত করা হয়েছে এবং মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বগুড়া পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্তসহ আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

ধুনটে খড়ি কুড়াতে গিয়ে তৃতীয় শ্রেনীর শিক্ষার্থী ধর্ষিত।

আপডেট সময় : ০৮:২৫:০৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

মোঃ সুমন হোসেন, ধুনট প্রতিনিধি:

বগুড়ার ধুনটে খড়ি কুড়াতে গিয়ে ১০ বছরের তৃতীয় শ্রেনীর এক শিক্ষার্থী ধর্ষিত হয়েছে। গত ২৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুর ৩ টায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত ৮ ফেব্রুয়ারী বুধবার রাতে ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে সামাদ আলী (৬০) নামের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলাসূত্রে জানাগেছে, ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী ধুনট উপজেলার গোসাইবাড়ী ইউিনিয়নের বড়বিলা গ্রামের জনৈক এক ব্যক্তির মেয়ে ও স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। গত ২৬ জানুয়ারী দুপুর ৩ টায় মেয়েটি পাশ্ববর্তী এলাকার একটি গাছের বাগানে চুলার জ্বালানি হিসেবে ব্যবহারের জন্য খড়ি কুড়াতে যায়।

এসময় প্রতিবেশি মৃত আফসার আলীর ছেলে সামাদ আলী ওই শিশু মেয়েটিকে ফুসলিয়ে তার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। মেয়েটির চিৎকারে প্রতিবেশিরা এসে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। গত ৮ ফেব্রুয়ারী মেয়েটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে বগুড়া জেলা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। অপরদিকে ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে দফায় দফায় বৈঠক ও মেয়েটির দরিদ্র পরিবারকে হুমকি-ধামকির তোয়াক্কা না করে বুধবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সামাদ আলীর বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা দায়ের করে শিক্ষার্থীর বাবা।

এ বিষয়ে ধুনট থানার এসআই আসাদুজ্জামান জানান, মেয়েটির বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলাটি রেকর্ডভুক্ত করা হয়েছে এবং মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বগুড়া পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্তসহ আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।