ঢাকা ০৫:৪৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলন করছে ইট ভাটার মালিক

চুয়াডাঙ্গা সদরের বেগমপুর ইউনিয়নের দোস্ত পূর্ব পাড়া গ্রামে একই দাগে ২০ থেকে ২৫ বিঘা জমি থেকে অবৈধভাবে মাটি উত্তলন করছে আর এম কে ব্রিকসের মালিক মাটি খেকো মিজানুর রহমান। প্রতিদিন শত শত গাড়ি মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাচ্ছে। এতে করে রাস্তায় যে পরিমান মাটি পড়ছে তাতে বৃষ্টি হলে যেকোন সময় দুর্ঘটনার শিকার হবে পথচারিরা। প্রসাননের নাম ভাঙিয়ে দেদারসে ভেকু মেশিন দিয়ে শত শত গাড়ি মাটি কেটে মাটি খেকো মিজানুর রহমান নিজ ইট ভাটায় প্রেরন করছে। শত শত গাড়ি মাটি নিয়ে যাওয়া আসা করায় রাস্তার ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। সেই সাথে পাশের কিছু বসতবাড়ী ও ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। যে জায়গা থেকে মাটি উত্তলন করছে তার পাশেই ফসলী জমি থাকায় ফসলী জমি গুলোর ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় জনসাধারণ সাংবাদিক দের বলেন, এভাবে মাটি কাটার ফলে রাস্তাসহ ফসলী জমির ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। কিন্তু পুকুরের মালিক এবং ইটভাটার মালিক প্রভাবশালী হওয়ায় আমরা কিছু বলতে ভয় পাই। তবে এলাকাবাসীর দাবী মাটি কাটা বন্ধ করে রাস্তাসহ পাশের বসত বাড়ি ও ফসলী জমি রক্ষা করে এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামিম ভুঁইয়া কে জানালে তিনি সাংবাদিকদের কে বলেন, মাটি কাটার কোন অনুমোদন নেই। তবে যারা অবৈধভাবে মাটি উত্তলন করছে তাদের কে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ফসলী জমি টিকিয়ে রাখতে প্রসাশন সার্বক্ষনিক কাজ করবে। তবে শুক্রবার ও শনিবার ছুটির দিন থাকায় এই দুইদিন বেশি ট্রাক্টর ব্যবহার করছে তারা।

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গায় প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে অবৈধ ভাবে মাটি উত্তোলন করছে ইট ভাটার মালিক

আপডেট সময় : ০২:০০:০০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩

চুয়াডাঙ্গা সদরের বেগমপুর ইউনিয়নের দোস্ত পূর্ব পাড়া গ্রামে একই দাগে ২০ থেকে ২৫ বিঘা জমি থেকে অবৈধভাবে মাটি উত্তলন করছে আর এম কে ব্রিকসের মালিক মাটি খেকো মিজানুর রহমান। প্রতিদিন শত শত গাড়ি মাটি কেটে ইট ভাটায় নিয়ে যাচ্ছে। এতে করে রাস্তায় যে পরিমান মাটি পড়ছে তাতে বৃষ্টি হলে যেকোন সময় দুর্ঘটনার শিকার হবে পথচারিরা। প্রসাননের নাম ভাঙিয়ে দেদারসে ভেকু মেশিন দিয়ে শত শত গাড়ি মাটি কেটে মাটি খেকো মিজানুর রহমান নিজ ইট ভাটায় প্রেরন করছে। শত শত গাড়ি মাটি নিয়ে যাওয়া আসা করায় রাস্তার ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। সেই সাথে পাশের কিছু বসতবাড়ী ও ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। যে জায়গা থেকে মাটি উত্তলন করছে তার পাশেই ফসলী জমি থাকায় ফসলী জমি গুলোর ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় জনসাধারণ সাংবাদিক দের বলেন, এভাবে মাটি কাটার ফলে রাস্তাসহ ফসলী জমির ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। কিন্তু পুকুরের মালিক এবং ইটভাটার মালিক প্রভাবশালী হওয়ায় আমরা কিছু বলতে ভয় পাই। তবে এলাকাবাসীর দাবী মাটি কাটা বন্ধ করে রাস্তাসহ পাশের বসত বাড়ি ও ফসলী জমি রক্ষা করে এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক। এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামিম ভুঁইয়া কে জানালে তিনি সাংবাদিকদের কে বলেন, মাটি কাটার কোন অনুমোদন নেই। তবে যারা অবৈধভাবে মাটি উত্তলন করছে তাদের কে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ফসলী জমি টিকিয়ে রাখতে প্রসাশন সার্বক্ষনিক কাজ করবে। তবে শুক্রবার ও শনিবার ছুটির দিন থাকায় এই দুইদিন বেশি ট্রাক্টর ব্যবহার করছে তারা।