ঢাকা ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বগুড়ার ধুনটে বাড়ছে আত্মহত্যার প্রবণতা

বগুড়ার ধুনটে বেড়েই চলছে আত্মহত্যার প্রবনতা,সামাজিক অবক্ষয়, মুল্যবোধ ও পারিবারিক কিছু ত্রুটির কারনে আত্মহত্যার প্রবনতা বাড়তে পারে বলে মনে করেন স্থানীয় বিশিষ্ট জনেরা। চলতি বছরে ৫ মাসের ব্যবধানে উপজেলা জুড়ে ৫টির অধিক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।
৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দাম্পত্য কলহের জেরে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের ধেরুয়াহাটি গ্রামের মৃত জহুরুল শেখের ছেলে রাব্বি শেখ (২২) বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। ৬ মার্চ সোমবার মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় মায়ের উপর অভিমান করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের খোকশাবাড়ি এলাকার মৃত আব্দুল হাই শাহিনের ছেলে নাফিজুর রহমান শাওন (১৬) নামের দশম শ্রেণীর এক ছাত্র আত্মহত্যা করে।
১০ মার্চ শুক্রবার ধুনট সদরপাড়া এলাকার আমজাদ হোসেন প্রামানিকের ছেলে ও গোসাইবাড়ী ডিগ্রি কলেজের ছাত্র আরিফ হোসেন (১৯) নামে একজন বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। ১২ মার্চ রবিবার গোসাইবাড়ি ইউনিয়নের গুয়াডহরী গ্রামের পশ্চিম পাড়া এলাকার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে ভ্যান চালক মুন্নাত হোসেন (৩০) আত্মহত্যা করে। পরের দিন ১৩ মার্চ সোমবার সকালে মায়ের উপর অভিমানে কীটনাশক সেবন করে আত্মহত্যা করে বড়িয়া গ্রামের ইমরুল প্রামানিকের ছেলে সামিউল ইসলাম (১৭)। ৮ এপ্রিল শনিবার ঈদের নতুন জামা কিনে না দেওয়ায় অভিমান করে উপজেলার প্রতাব খাদুলী গ্রামের মাজেম আলী তালুকদারের মেয়ে এবং স্থানীয় খাদুলী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী মহুয়া খাতুন (১৪) আত্মহত্যা করে। ২৪ এপ্রিল সোমবার নেশার টাকা না পেয়ে চৌকিবাড়ী গ্রামের পূর্বপাড়া এলাকার তাহের আলী শেখের ছেলে সম্রাট (১৭) নামে এক কিশোর শ্রমিক আত্মহত্যা করে। ১ মে সোমবার উপজেলার চালাপাড়া গ্রামের চৈতারপাড়া এলাকার মৃত নায়েব আলী মন্ডলের ছেলে গার্মেন্টস শ্রমিক নান্নু মিয়া (৩০) একই উপজেলার আনাপুর গ্রামে শশুরবাড়ীতে এসে আত্মহত্যা করে। উল্লেখ্য গত ২৮ এপ্রিল নান্নু মিয়ার সাথে একই উপজেলার আনারপুর গ্রামের আবুল কালাম মন্ডলের মেয়ে মিম আক্তারের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের ৩ দিনের মাথায় এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। সম্প্রতি ১৭ মে বুধবার বগুড়া শহরের কলোনি এলাকায় ভাইয়ের বাসায় ধুনট উপজেলার উজালশিং গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে ও মথুরাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নাঈম ভূঁইয়া (১৮) আত্মহত্যা করে।
চলমান এসকল দুর্ঘটনা সামাজিক অবক্ষয়, মুল্যবোধ ও পারিবারিক কিছু ত্রুটির দিকে ইঙ্গিত বহন করে। অনাকাঙ্ক্ষিত এমন দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেতে সামাজিক ও পারিবারিক সচেতনতার কোন বিকল্প নেই বলে মনে করেন উপজেলার স্থানীয় বিশিষ্ট জনেরা।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

বগুড়ার ধুনটে বাড়ছে আত্মহত্যার প্রবণতা

আপডেট সময় : ০৬:১৩:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩

বগুড়ার ধুনটে বেড়েই চলছে আত্মহত্যার প্রবনতা,সামাজিক অবক্ষয়, মুল্যবোধ ও পারিবারিক কিছু ত্রুটির কারনে আত্মহত্যার প্রবনতা বাড়তে পারে বলে মনে করেন স্থানীয় বিশিষ্ট জনেরা। চলতি বছরে ৫ মাসের ব্যবধানে উপজেলা জুড়ে ৫টির অধিক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।
৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দাম্পত্য কলহের জেরে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের ধেরুয়াহাটি গ্রামের মৃত জহুরুল শেখের ছেলে রাব্বি শেখ (২২) বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। ৬ মার্চ সোমবার মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ায় মায়ের উপর অভিমান করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের খোকশাবাড়ি এলাকার মৃত আব্দুল হাই শাহিনের ছেলে নাফিজুর রহমান শাওন (১৬) নামের দশম শ্রেণীর এক ছাত্র আত্মহত্যা করে।
১০ মার্চ শুক্রবার ধুনট সদরপাড়া এলাকার আমজাদ হোসেন প্রামানিকের ছেলে ও গোসাইবাড়ী ডিগ্রি কলেজের ছাত্র আরিফ হোসেন (১৯) নামে একজন বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। ১২ মার্চ রবিবার গোসাইবাড়ি ইউনিয়নের গুয়াডহরী গ্রামের পশ্চিম পাড়া এলাকার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে ভ্যান চালক মুন্নাত হোসেন (৩০) আত্মহত্যা করে। পরের দিন ১৩ মার্চ সোমবার সকালে মায়ের উপর অভিমানে কীটনাশক সেবন করে আত্মহত্যা করে বড়িয়া গ্রামের ইমরুল প্রামানিকের ছেলে সামিউল ইসলাম (১৭)। ৮ এপ্রিল শনিবার ঈদের নতুন জামা কিনে না দেওয়ায় অভিমান করে উপজেলার প্রতাব খাদুলী গ্রামের মাজেম আলী তালুকদারের মেয়ে এবং স্থানীয় খাদুলী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী মহুয়া খাতুন (১৪) আত্মহত্যা করে। ২৪ এপ্রিল সোমবার নেশার টাকা না পেয়ে চৌকিবাড়ী গ্রামের পূর্বপাড়া এলাকার তাহের আলী শেখের ছেলে সম্রাট (১৭) নামে এক কিশোর শ্রমিক আত্মহত্যা করে। ১ মে সোমবার উপজেলার চালাপাড়া গ্রামের চৈতারপাড়া এলাকার মৃত নায়েব আলী মন্ডলের ছেলে গার্মেন্টস শ্রমিক নান্নু মিয়া (৩০) একই উপজেলার আনাপুর গ্রামে শশুরবাড়ীতে এসে আত্মহত্যা করে। উল্লেখ্য গত ২৮ এপ্রিল নান্নু মিয়ার সাথে একই উপজেলার আনারপুর গ্রামের আবুল কালাম মন্ডলের মেয়ে মিম আক্তারের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের ৩ দিনের মাথায় এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। সম্প্রতি ১৭ মে বুধবার বগুড়া শহরের কলোনি এলাকায় ভাইয়ের বাসায় ধুনট উপজেলার উজালশিং গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে ও মথুরাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নাঈম ভূঁইয়া (১৮) আত্মহত্যা করে।
চলমান এসকল দুর্ঘটনা সামাজিক অবক্ষয়, মুল্যবোধ ও পারিবারিক কিছু ত্রুটির দিকে ইঙ্গিত বহন করে। অনাকাঙ্ক্ষিত এমন দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেতে সামাজিক ও পারিবারিক সচেতনতার কোন বিকল্প নেই বলে মনে করেন উপজেলার স্থানীয় বিশিষ্ট জনেরা।