ঢাকা ১০:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪, ২৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে সুদের কারবারি আলতাফ আটক

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুুতে এক সুদে কারবারিকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার কুলবাড়িয়া বাজারে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত সুদে কারবারি আলতাফ মন্ডল কুলবাড়িয়া গ্রামের মৃত গোলাপ মন্ডলের ছেলে।
পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, আলতাফ মন্ডল দীর্ঘদিন ধরে সুদে কারবারের সাথে জড়িত এমন তথ্য পায় ফলসী ইউনিয়নের বিট পুলিশের দায়িত্বে থাকা এস আই সাইফুল ইসলাম। আলতাফ নিজ গ্রামের অসহায়, দরিদ্র মানুষের কাছ থেকে ব্লাক চেক ও স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে টাকা ধার দিত। মূল টাকা আদায় করার পরেও চেকে ইচ্ছামত টাকার পরিমান বসিয়ে তাদেরকে মামলার ভয় দেখিয়ে কয়েক গুন টাকা আদায় করত। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ ভুক্তভোগীরা। কিন্তু প্রভাবশালী হওয়ায় তার ভয়ে কেউ থানায় অভিযোগ করতে সাহস পায়নি।
হরিণাকুণ্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সাইফুল ইসলামের নির্দেশে তথ্যানুসন্ধানে সঙ্গীয় ফোর্সসহ বৃহস্পতিবার রাতে কুলবাড়িয়া বাজারে যায় এস আই আলাউদ্দিন আল আজাদ। কুলবাড়িয়া বাজারে পুলিশের অবস্থান জানতে পেরে আলতাফ পালাতে গেলে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। তার কথায় সন্দেহ হলে স্থানীয়দের সহযোগীতায় তার ঘর তল্লাসি করে শিউলী খাতুন নামের একজনের স্বাক্ষরিত দুইটি ব্লাক চেক ও একলাখ দশ হাজার টাকার উল্লেখিত আর একটি চেক উদ্ধার করে পুলিশ।
এবিষয়ে হরিণাকুন্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, বিভিন্ন সময়ে এইসব সুদখোর ব্লাক চেক নিয়ে মানুষকে হয়রানী করছে এবং তাদের জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। টাকা দিতে না পেরে তারা ঘর ছাড়া হচ্ছে। এসব মানুষকে নিবৃত্তি করার জন্য আমাদের এই অভিযান চলছে এবং অভিযান চলমান থাকবে। তিনি আরও বলেন ঝিনাইদহ মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তারিখ বিহীন ৩ টি চেক উদ্ধার করি। তার বিরুদ্ধে দ্রুত বিচারের মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। সুদে কারবারিদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

ঝিনাইদহে সুদের কারবারি আলতাফ আটক

আপডেট সময় : ০৬:০৬:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডুুতে এক সুদে কারবারিকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার কুলবাড়িয়া বাজারে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত সুদে কারবারি আলতাফ মন্ডল কুলবাড়িয়া গ্রামের মৃত গোলাপ মন্ডলের ছেলে।
পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, আলতাফ মন্ডল দীর্ঘদিন ধরে সুদে কারবারের সাথে জড়িত এমন তথ্য পায় ফলসী ইউনিয়নের বিট পুলিশের দায়িত্বে থাকা এস আই সাইফুল ইসলাম। আলতাফ নিজ গ্রামের অসহায়, দরিদ্র মানুষের কাছ থেকে ব্লাক চেক ও স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে টাকা ধার দিত। মূল টাকা আদায় করার পরেও চেকে ইচ্ছামত টাকার পরিমান বসিয়ে তাদেরকে মামলার ভয় দেখিয়ে কয়েক গুন টাকা আদায় করত। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ ভুক্তভোগীরা। কিন্তু প্রভাবশালী হওয়ায় তার ভয়ে কেউ থানায় অভিযোগ করতে সাহস পায়নি।
হরিণাকুণ্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সাইফুল ইসলামের নির্দেশে তথ্যানুসন্ধানে সঙ্গীয় ফোর্সসহ বৃহস্পতিবার রাতে কুলবাড়িয়া বাজারে যায় এস আই আলাউদ্দিন আল আজাদ। কুলবাড়িয়া বাজারে পুলিশের অবস্থান জানতে পেরে আলতাফ পালাতে গেলে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। তার কথায় সন্দেহ হলে স্থানীয়দের সহযোগীতায় তার ঘর তল্লাসি করে শিউলী খাতুন নামের একজনের স্বাক্ষরিত দুইটি ব্লাক চেক ও একলাখ দশ হাজার টাকার উল্লেখিত আর একটি চেক উদ্ধার করে পুলিশ।
এবিষয়ে হরিণাকুন্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, বিভিন্ন সময়ে এইসব সুদখোর ব্লাক চেক নিয়ে মানুষকে হয়রানী করছে এবং তাদের জীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। টাকা দিতে না পেরে তারা ঘর ছাড়া হচ্ছে। এসব মানুষকে নিবৃত্তি করার জন্য আমাদের এই অভিযান চলছে এবং অভিযান চলমান থাকবে। তিনি আরও বলেন ঝিনাইদহ মাননীয় পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তারিখ বিহীন ৩ টি চেক উদ্ধার করি। তার বিরুদ্ধে দ্রুত বিচারের মামলা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। সুদে কারবারিদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।