১১:২৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বার জব্দ

ভারতে পাচারকালে চুয়াডাঙ্গার মুন্সিপুর সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বার জব্দ করেছে বিজিবি। শুক্রবার বিকেল ৩টায় মুন্সিপুর সরদারপাড়া মাঠে অভিযান চালিয়ে স্বর্ণের বারগুলো জব্দ করতে সক্ষম হয় বিজিবির সদস্যরা। স্বর্ণের বারগুলোর ওজন ১ কেজি ১০০ গ্রাম।
বিজিবি জানায়, শুক্রবার দুপুরের পর চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার মুন্সিপুর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে স্বর্ণ পাচার হবে গোপনে এমন খবর পায়। এরপর মুন্সিপুর বিওপির কমান্ডার নায়েব সুবেদার আলাউদ্দিন বিশ্বাস টহল দল নিয়ে সীমান্ত পিলার ৯২/১০-আর হতে ২০০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সরদারপাড়া নামক এলাকায় মাঠের মধ্যে এ্যাম্বুশ করে।
এ সময় চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল শাহ মোঃ ইশতিয়াক, পিএসসি’র সার্বিক দিকনির্দেশনায় বিজিবি সশস্ত্র টহলদল দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে চোরা কারবারিকে ধাওয়া করলে তিনটি প্যাকেট ফেলে দৌড়ে ভারতে দিকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে বিজিবি টহলদল সেখান থেকে কসটেপ দিয়ে মোড়ানো সাদা ও কালো রংয়ের তিনটি প্যাকেট উদ্ধার করে। প্যাকেটগুলোর মধ্যে থেকে ১০টি স্বর্ণের বার জব্দ করতে সক্ষম হয়। যার পরিমান ১ কেজি ১০০ গ্রাম। আনুমানিক মুল্য ৮৭ লাখ ৯৭০ টাকা। এ ঘটনায় দামুড়হুদা থানায় মামলা হয়েছে। স্বর্ণের বারগুলো চুয়াডাঙ্গা ট্রেজারী অফিসে জমা করেছে বিজিবি।

ট্যাগস :

চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বার জব্দ

প্রকাশ : ০৯:৫৮:১৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ভারতে পাচারকালে চুয়াডাঙ্গার মুন্সিপুর সীমান্তে ১০টি স্বর্ণের বার জব্দ করেছে বিজিবি। শুক্রবার বিকেল ৩টায় মুন্সিপুর সরদারপাড়া মাঠে অভিযান চালিয়ে স্বর্ণের বারগুলো জব্দ করতে সক্ষম হয় বিজিবির সদস্যরা। স্বর্ণের বারগুলোর ওজন ১ কেজি ১০০ গ্রাম।
বিজিবি জানায়, শুক্রবার দুপুরের পর চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার মুন্সিপুর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে স্বর্ণ পাচার হবে গোপনে এমন খবর পায়। এরপর মুন্সিপুর বিওপির কমান্ডার নায়েব সুবেদার আলাউদ্দিন বিশ্বাস টহল দল নিয়ে সীমান্ত পিলার ৯২/১০-আর হতে ২০০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সরদারপাড়া নামক এলাকায় মাঠের মধ্যে এ্যাম্বুশ করে।
এ সময় চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল শাহ মোঃ ইশতিয়াক, পিএসসি’র সার্বিক দিকনির্দেশনায় বিজিবি সশস্ত্র টহলদল দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে চোরা কারবারিকে ধাওয়া করলে তিনটি প্যাকেট ফেলে দৌড়ে ভারতে দিকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে বিজিবি টহলদল সেখান থেকে কসটেপ দিয়ে মোড়ানো সাদা ও কালো রংয়ের তিনটি প্যাকেট উদ্ধার করে। প্যাকেটগুলোর মধ্যে থেকে ১০টি স্বর্ণের বার জব্দ করতে সক্ষম হয়। যার পরিমান ১ কেজি ১০০ গ্রাম। আনুমানিক মুল্য ৮৭ লাখ ৯৭০ টাকা। এ ঘটনায় দামুড়হুদা থানায় মামলা হয়েছে। স্বর্ণের বারগুলো চুয়াডাঙ্গা ট্রেজারী অফিসে জমা করেছে বিজিবি।