ঢাকা ১২:১২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের রেলপথ অবরোধ পরে প্রসাশনের আশ্বাসে প্রত্যাহার

চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বুধবার বেলা ১১টায় দর্শনা হল্টস্টেশনে রেলপথ অবরোধ কর্মসুচি পালন করা হয়েছে।
দর্শনার জন্য আমরা, সংগঠনের আয়োজনের সকাল ১১টার দিকে দর্শনা হল্টস্টেশনে অবরোধ কর্মসুচি শুরু হয়। সংগঠনের আহবায়ক জাসদ নেতা আনোয়ারুল ইসলাম বাবুর সভাপতিত্বে ইউ পি চেয়ারম্যান এ এস এম জাকারিয়া আলম তার বক্তব্যে বলেন দর্শনা স্টেশনে সুন্দরবন এক্সপ্রেস আপ, চিত্রা এক্সপ্রেস ডাউন ট্রেনের যাত্রা বিরতি, ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনে দর্শনার জন্য আসন বরাদ্ধ ও পুরাতন রেলস্টেশন রেলক্রসিং এ আন্ডারপাস ও ওভারপাস নির্মান ও বিগতদিন বন্ধ থাকা দুটি লোকাল ট্রেন দর্শনা থেকে পুনরায় চালু করা সহ ৬ দফা দাবি তুলে ধরেন। পরে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোকসান মিতা অবরোধ কর্মসুচিতে অংশ নিয়ে বলেন অবরোধ কর্মসুচি প্রত্যাহার করুন, আপনাদের দাবিগুলো জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পৌছানোর ব্যাবস্থা করা হবে। পরে সংগঠনের আহবায়ক অবরোধ কর্মসুচি প্রত্যাহার করার ঘোষনা দেন। কর্মসুচিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা, সমাজকর্মী, ছাত্র, এনজিও কর্মিদের অংশ গ্রহন ছিল।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গায় ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের রেলপথ অবরোধ পরে প্রসাশনের আশ্বাসে প্রত্যাহার

আপডেট সময় : ০২:০৭:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩

চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বুধবার বেলা ১১টায় দর্শনা হল্টস্টেশনে রেলপথ অবরোধ কর্মসুচি পালন করা হয়েছে।
দর্শনার জন্য আমরা, সংগঠনের আয়োজনের সকাল ১১টার দিকে দর্শনা হল্টস্টেশনে অবরোধ কর্মসুচি শুরু হয়। সংগঠনের আহবায়ক জাসদ নেতা আনোয়ারুল ইসলাম বাবুর সভাপতিত্বে ইউ পি চেয়ারম্যান এ এস এম জাকারিয়া আলম তার বক্তব্যে বলেন দর্শনা স্টেশনে সুন্দরবন এক্সপ্রেস আপ, চিত্রা এক্সপ্রেস ডাউন ট্রেনের যাত্রা বিরতি, ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনে দর্শনার জন্য আসন বরাদ্ধ ও পুরাতন রেলস্টেশন রেলক্রসিং এ আন্ডারপাস ও ওভারপাস নির্মান ও বিগতদিন বন্ধ থাকা দুটি লোকাল ট্রেন দর্শনা থেকে পুনরায় চালু করা সহ ৬ দফা দাবি তুলে ধরেন। পরে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোকসান মিতা অবরোধ কর্মসুচিতে অংশ নিয়ে বলেন অবরোধ কর্মসুচি প্রত্যাহার করুন, আপনাদের দাবিগুলো জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পৌছানোর ব্যাবস্থা করা হবে। পরে সংগঠনের আহবায়ক অবরোধ কর্মসুচি প্রত্যাহার করার ঘোষনা দেন। কর্মসুচিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা, সমাজকর্মী, ছাত্র, এনজিও কর্মিদের অংশ গ্রহন ছিল।