০৯:৫১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেলারুশে নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ীর ১০ বছরের কারাদণ্ড

সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অর্থ সহায়তার অভিযোগে দেশটির শীর্ষ মানবাধিকার আইনজীবী ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ৬০ বছর বয়সী আলেস বিলিয়াতস্কিকে ১০ বছরের সাজা দিল বেলারুশ।
শুক্রবার এ রায় দেন বেলারুশের একটি আদালত। এই রায়ে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে তার আরও ৩ সহযোগীকে।
ভিয়াসনা হিউম্যান রাইটস সেন্টার নামে একটি মানবাধিকার সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা বিয়ালিয়াতস্কি। ২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কো ক্ষমতায় আসলে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেলারুশে শুরু হয় বিক্ষোভ। সে সময় বিক্ষোভে উসকানি ও অর্থ সহায়তা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ভিয়াসনা হিউম্যান রাইটস সেন্টারের বিরুদ্ধে।
বিলিয়াতস্কির সমর্থকরা জানিয়েছেন, বেলারুশিয়ান নেতা আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো কর্তৃত্ববাদী সরকার তাকে নীরব করার চেষ্টা করছে। এদিকে, মিথ্যা দোষে বিয়ালিয়াতস্কিকে সাজা দেওয়া হয়েছে বলে নিন্দা জানিয়েছেন বেলারুশের বিরোধী নেতারা।
দেশটির নির্বাসিত বেলারুশিয়ান বিরোধীদলীয় নেতা সভিয়াতলানা সিখানৌস্কায়া এই রায়কে ভয়াবহ অভিহিত করে বলেছেন, বিলিয়াতস্কি এবং একই বিচারে দণ্ডিত অন্যান্য কর্মীদের অন্যায়ভাবে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘এই লজ্জাজনক অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করতে এবং তাদের মুক্ত করতে আমাদের অবশ্যই যে কোনো কিছু করতে হবে।
বিলিয়াতস্কি ২০২২ সালের অক্টোবরে মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের ওপর তার কাজের জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন, যা রাশিয়ান অধিকার গোষ্ঠী মেমোরিয়াল এবং ইউক্রেনের নাগরিক স্বাধীনতা কেন্দ্রের সঙ্গে ভাগ করা হয়েছিল।

বেলারুশে নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ীর ১০ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশ : ০৯:৪৫:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩

সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অর্থ সহায়তার অভিযোগে দেশটির শীর্ষ মানবাধিকার আইনজীবী ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ৬০ বছর বয়সী আলেস বিলিয়াতস্কিকে ১০ বছরের সাজা দিল বেলারুশ।
শুক্রবার এ রায় দেন বেলারুশের একটি আদালত। এই রায়ে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে তার আরও ৩ সহযোগীকে।
ভিয়াসনা হিউম্যান রাইটস সেন্টার নামে একটি মানবাধিকার সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা বিয়ালিয়াতস্কি। ২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কো ক্ষমতায় আসলে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেলারুশে শুরু হয় বিক্ষোভ। সে সময় বিক্ষোভে উসকানি ও অর্থ সহায়তা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ভিয়াসনা হিউম্যান রাইটস সেন্টারের বিরুদ্ধে।
বিলিয়াতস্কির সমর্থকরা জানিয়েছেন, বেলারুশিয়ান নেতা আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো কর্তৃত্ববাদী সরকার তাকে নীরব করার চেষ্টা করছে। এদিকে, মিথ্যা দোষে বিয়ালিয়াতস্কিকে সাজা দেওয়া হয়েছে বলে নিন্দা জানিয়েছেন বেলারুশের বিরোধী নেতারা।
দেশটির নির্বাসিত বেলারুশিয়ান বিরোধীদলীয় নেতা সভিয়াতলানা সিখানৌস্কায়া এই রায়কে ভয়াবহ অভিহিত করে বলেছেন, বিলিয়াতস্কি এবং একই বিচারে দণ্ডিত অন্যান্য কর্মীদের অন্যায়ভাবে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘এই লজ্জাজনক অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করতে এবং তাদের মুক্ত করতে আমাদের অবশ্যই যে কোনো কিছু করতে হবে।
বিলিয়াতস্কি ২০২২ সালের অক্টোবরে মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের ওপর তার কাজের জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন, যা রাশিয়ান অধিকার গোষ্ঠী মেমোরিয়াল এবং ইউক্রেনের নাগরিক স্বাধীনতা কেন্দ্রের সঙ্গে ভাগ করা হয়েছিল।