ঢাকা ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে একই পরিবারের ৬ জনকে গুলি করে হত্যা

ভারতের মধ্যপ্রদেশে তিন নারীসহ এক পরিবারের ছয়জনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিবেশী আরেকটি পরিবারের লোকজন তাদেরকে হত্যা করে।
শুক্রবার রাজ্যের মোরেনা জেলা শহর থেকে ৫০-৬০ কিলোমিটার দূরের লেপা গ্রামে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে। এ সময় গুরুতর আহত হন আরও দুজন। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ঘটনার একটি ভিডিওতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, বন্দুকধারী বেশ কয়েকজন নিরস্ত্র কয়েক ব্যক্তিকে লাঠিসোঁটা দিয়ে মারধর করার পর গুলি করছেন।
এনডিটিভি জানিয়েছে, ওই এলাকার ধীর সিং ও গজেন্দ্র সিং পরিবারের মধ্যে বিরোধের জেরে শুক্রবার সকালে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।
এর আগে বাড়ির ময়লা ফেলা নিয়ে ২০১৩ সালে দুই পরিবার সংঘাতে জড়ায়। ওই সময় ধীর সিংয়ের পরিবারের দুজন খুন হন। তখন গজেন্দ্র সিংয়ের পরিবারের সদস্যরা গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যান।
দুই পরিবারের মধ্যে বিষয়টির মীমাংসা হলে গজেন্দ্র সিংয়ের পরিবার গ্রামে ফিরে আসে। আজ ধীর সিংয়ের পরিবার লাঠিসোঁটা নিয়ে তাদের ওপর হামলার পর গুলি চালায়। নিহত ছয়জনের মধ্যে গজেন্দ্র সিং ও তার দুই ছেলেও রয়েছেন।
পুলিশ জানিয়েছে, দুই পরিবারের মধ্যে পুরোনো বিরোধ ছিল। আজ যাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে, তাদের পরিবারের কয়েকজন সদস্যকে নিহত ছয়জনের স্বজনরা হত্যা করেছিলেন বলে জানা যায়।
আজকের হত্যাকাণ্ডে জড়িত আটজনকে পুলিশ চিহ্নিত করেছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

ভারতে একই পরিবারের ৬ জনকে গুলি করে হত্যা

আপডেট সময় : ০৭:৫১:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৫ মে ২০২৩

ভারতের মধ্যপ্রদেশে তিন নারীসহ এক পরিবারের ছয়জনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিবেশী আরেকটি পরিবারের লোকজন তাদেরকে হত্যা করে।
শুক্রবার রাজ্যের মোরেনা জেলা শহর থেকে ৫০-৬০ কিলোমিটার দূরের লেপা গ্রামে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটে। এ সময় গুরুতর আহত হন আরও দুজন। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এ ঘটনার একটি ভিডিওতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, বন্দুকধারী বেশ কয়েকজন নিরস্ত্র কয়েক ব্যক্তিকে লাঠিসোঁটা দিয়ে মারধর করার পর গুলি করছেন।
এনডিটিভি জানিয়েছে, ওই এলাকার ধীর সিং ও গজেন্দ্র সিং পরিবারের মধ্যে বিরোধের জেরে শুক্রবার সকালে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।
এর আগে বাড়ির ময়লা ফেলা নিয়ে ২০১৩ সালে দুই পরিবার সংঘাতে জড়ায়। ওই সময় ধীর সিংয়ের পরিবারের দুজন খুন হন। তখন গজেন্দ্র সিংয়ের পরিবারের সদস্যরা গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যান।
দুই পরিবারের মধ্যে বিষয়টির মীমাংসা হলে গজেন্দ্র সিংয়ের পরিবার গ্রামে ফিরে আসে। আজ ধীর সিংয়ের পরিবার লাঠিসোঁটা নিয়ে তাদের ওপর হামলার পর গুলি চালায়। নিহত ছয়জনের মধ্যে গজেন্দ্র সিং ও তার দুই ছেলেও রয়েছেন।
পুলিশ জানিয়েছে, দুই পরিবারের মধ্যে পুরোনো বিরোধ ছিল। আজ যাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে, তাদের পরিবারের কয়েকজন সদস্যকে নিহত ছয়জনের স্বজনরা হত্যা করেছিলেন বলে জানা যায়।
আজকের হত্যাকাণ্ডে জড়িত আটজনকে পুলিশ চিহ্নিত করেছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।