ঢাকা ১২:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইনে বিস্ফোরণ ছিল আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড: রাশিয়া

নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইনে বিস্ফোরণ ছিল ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’। মঙ্গলবার জাতিসংঘের বৈঠকে এ দাবি করেন রাশিয়ার প্রতিনিধি ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।
গত সেপ্টেম্বরের নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইনে বিস্ফোরণ ইস্যুতে বিশেষ বৈঠক হয় নিরাপত্তা পরিষদে। এখনো এ বিষয়ে তদন্ত শেষ হয়নি বলে জানিয়েছে ডেনমার্ক, জার্মানি ও সুইডেন। নিরাপত্তা পরিষদকে যৌথভাবে একটি চিঠি দিয়েছে তিন দেশ।
সেখানে বলা হয়, তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে রাশিয়াকে। তবে তিন দেশের তদন্তকে পক্ষপাতমূলক বলে আখ্যা দিয়েছে মস্কো। আবারও দাবি করে, কয়েক বিলিয়ন ডলার প্রকল্পটি পশ্চিমা হামলার শিকার।
এদিকে, চলতি মাসের শুরুতেই এক বিবৃতিতে এ ধরনের অভিযোগ উড়িয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবারের বৈঠকে নর্ড স্ট্রিমে বিস্ফোরণ ইস্যুতে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানিয়েছে চীনও।
জাতিসংঘে রুশ প্রতিনিধি ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া বলেন, এ ধরনের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের পেছনে কারা থাকতে পারে তা স্পষ্ট। রাশিয়ার আইন অনুযায়ী, এ বিষয়ে তদন্তও চলছে। স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলো যে তদন্ত করছে তা স্বচ্ছ নয়, বরং এটা স্পষ্ট তাদের আমেরিকান ভাইয়ের কর্মকাণ্ড ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইনে বিস্ফোরণ ছিল আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড: রাশিয়া

আপডেট সময় : ০৬:২৭:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইনে বিস্ফোরণ ছিল ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’। মঙ্গলবার জাতিসংঘের বৈঠকে এ দাবি করেন রাশিয়ার প্রতিনিধি ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।
গত সেপ্টেম্বরের নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইনে বিস্ফোরণ ইস্যুতে বিশেষ বৈঠক হয় নিরাপত্তা পরিষদে। এখনো এ বিষয়ে তদন্ত শেষ হয়নি বলে জানিয়েছে ডেনমার্ক, জার্মানি ও সুইডেন। নিরাপত্তা পরিষদকে যৌথভাবে একটি চিঠি দিয়েছে তিন দেশ।
সেখানে বলা হয়, তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে রাশিয়াকে। তবে তিন দেশের তদন্তকে পক্ষপাতমূলক বলে আখ্যা দিয়েছে মস্কো। আবারও দাবি করে, কয়েক বিলিয়ন ডলার প্রকল্পটি পশ্চিমা হামলার শিকার।
এদিকে, চলতি মাসের শুরুতেই এক বিবৃতিতে এ ধরনের অভিযোগ উড়িয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবারের বৈঠকে নর্ড স্ট্রিমে বিস্ফোরণ ইস্যুতে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানিয়েছে চীনও।
জাতিসংঘে রুশ প্রতিনিধি ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া বলেন, এ ধরনের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের পেছনে কারা থাকতে পারে তা স্পষ্ট। রাশিয়ার আইন অনুযায়ী, এ বিষয়ে তদন্তও চলছে। স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলো যে তদন্ত করছে তা স্বচ্ছ নয়, বরং এটা স্পষ্ট তাদের আমেরিকান ভাইয়ের কর্মকাণ্ড ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে।