ঢাকা ০৩:৪০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ

সীমান্ত অতিক্রম করে রাশিয়ায় হামলা

ইউক্রেনের কিছু নাগরিক সীমান্ত অতিক্রম করে রাশিয়ায় প্রবেশ করে এবং একটি প্রাইভেটকারে গুলিবর্ষণ করে একজনকে হত্যা করে। এ ঘটনায় একটি শিশু আহত হয়। এছাড়া তারা একটি দোকানে কয়েকজনকে জিম্মি করে রাখে।
ইউক্রেনের বিরুদ্ধে আন্তঃসীমান্ত রেখা অতিক্রম করে রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় ব্রাইয়ানস্ক এলাকায় ‘সন্ত্রাসী হামলা’র অভিযোগ করেছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পাশাপাশি তিনি বেসামরিক লোকজনের উপর চালানো এই ‘অন্তর্ঘাতমূলক’ তৎপরতার সঙ্গে জড়িতদের নিশ্চিহ্ন করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।
এ প্রসঙ্গে রাশিয়ার নিরাপত্তা সংস্থা এফএসবি জানায়, ইউক্রেনের ওই নাগরিকদের তাদের দেশে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলে, ‘জানমালের ক্ষতি এড়াতে ও বেসামরিক স্থাপনার ধ্বংস এড়াতে শত্রুদের ইউক্রেনের ভূখণ্ডে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।
এফএসবি আরও জানায়, ওই সংঘবদ্ধ দলটি রাশিয়ায় ব্যাপক হামলার উদ্দেশ্য নিয়ে এসেছিল। তারা জানায়, বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য ওই দলটি ফেলে রেখে যায়।
এদিকে, ইউক্রেন রাশিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা ‘উত্তেজনা’ তৈরির অভিযোগ আনলেও ইঙ্গিত দিয়েছে যে, রুশ সরকার বিরোধী পক্ষের লোকজনের মাধ্যমে এধরনের হামলা চালানো হতে পারে।
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির জেষ্ঠ্য উপদেষ্টা মিখাইলো পোডোলায়েক এপ্রসঙ্গে টুইটার বার্তায় বলেন, ‘ইউক্রেনের অন্তর্ঘাতী দলের রাশিয়ান ফেডারেশনে হামলার গল্পটি সত্যিকার অর্থে ইচ্ছাকৃত উসকানি।
এক বছর আগে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর গোলাবর্ষণসহ বিচ্ছিন্ন অন্তর্ঘাতমূলক তৎপরতার কারণে সাম্প্রতিক সময়ে দেশটির সীমান্ত এলাকা ক্রমেই অস্থির হয়ে উঠছে।
এপ্রসঙ্গে প্রেসিডেন্ট পুতিন এক টেলিভিশন ভাষণে বলেন, ‘তারা কোনো কিছুই অর্জন করতে পারবে না, আমরা তাদের নিশ্চিহ্ন করে দেব।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ

সীমান্ত অতিক্রম করে রাশিয়ায় হামলা

আপডেট সময় : ১০:১৩:৫৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মার্চ ২০২৩

ইউক্রেনের কিছু নাগরিক সীমান্ত অতিক্রম করে রাশিয়ায় প্রবেশ করে এবং একটি প্রাইভেটকারে গুলিবর্ষণ করে একজনকে হত্যা করে। এ ঘটনায় একটি শিশু আহত হয়। এছাড়া তারা একটি দোকানে কয়েকজনকে জিম্মি করে রাখে।
ইউক্রেনের বিরুদ্ধে আন্তঃসীমান্ত রেখা অতিক্রম করে রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় ব্রাইয়ানস্ক এলাকায় ‘সন্ত্রাসী হামলা’র অভিযোগ করেছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পাশাপাশি তিনি বেসামরিক লোকজনের উপর চালানো এই ‘অন্তর্ঘাতমূলক’ তৎপরতার সঙ্গে জড়িতদের নিশ্চিহ্ন করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।
এ প্রসঙ্গে রাশিয়ার নিরাপত্তা সংস্থা এফএসবি জানায়, ইউক্রেনের ওই নাগরিকদের তাদের দেশে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলে, ‘জানমালের ক্ষতি এড়াতে ও বেসামরিক স্থাপনার ধ্বংস এড়াতে শত্রুদের ইউক্রেনের ভূখণ্ডে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।
এফএসবি আরও জানায়, ওই সংঘবদ্ধ দলটি রাশিয়ায় ব্যাপক হামলার উদ্দেশ্য নিয়ে এসেছিল। তারা জানায়, বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য ওই দলটি ফেলে রেখে যায়।
এদিকে, ইউক্রেন রাশিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা ‘উত্তেজনা’ তৈরির অভিযোগ আনলেও ইঙ্গিত দিয়েছে যে, রুশ সরকার বিরোধী পক্ষের লোকজনের মাধ্যমে এধরনের হামলা চালানো হতে পারে।
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির জেষ্ঠ্য উপদেষ্টা মিখাইলো পোডোলায়েক এপ্রসঙ্গে টুইটার বার্তায় বলেন, ‘ইউক্রেনের অন্তর্ঘাতী দলের রাশিয়ান ফেডারেশনে হামলার গল্পটি সত্যিকার অর্থে ইচ্ছাকৃত উসকানি।
এক বছর আগে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর গোলাবর্ষণসহ বিচ্ছিন্ন অন্তর্ঘাতমূলক তৎপরতার কারণে সাম্প্রতিক সময়ে দেশটির সীমান্ত এলাকা ক্রমেই অস্থির হয়ে উঠছে।
এপ্রসঙ্গে প্রেসিডেন্ট পুতিন এক টেলিভিশন ভাষণে বলেন, ‘তারা কোনো কিছুই অর্জন করতে পারবে না, আমরা তাদের নিশ্চিহ্ন করে দেব।