ঢাকা ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
১৩০ কোটি ডলারের একটি ঋণ প্যাকেজের আওতায় এই টাকা দেওয়া হয়েছে।

বিপর্যস্ত পাকিস্তানকে আরও ৫০ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দিয়েছে চীন

চীনের কাছ থেকে আবারও ঋণের টাকা পেল পাকিস্তান। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটি পাকিস্তানকে আরও ৫০ কোটি ডলার দিয়েছে। ১৩০ কোটি ডলারের একটি ঋণ প্যাকেজের আওতায় এই টাকা দেওয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, বিপর্যস্ত পাকিস্তানের অর্থনীতিতে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ স্থিতিশীল করার ক্ষেত্রে এই ঋণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এর আগে গত মাসের শেষ দিকে পাকিস্তানকে ৭০ কোটি ডলার ঋণ দেয় চীন।
এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী ইসহাক দার শুক্রবার তার টুইটার হ্যান্ডেলে বলেছেন, চীনের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক অব চায়না লিমিটেড (আইসিবিসি) সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছে।
তিনি আরও বলেন, ‘এই ঋণ সুবিধাটি তিন কিস্তিতে হস্তান্তর করা হবে। প্রথম কিস্তির ৫০ কোটি ডলার পেয়েছে স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তান (এসবিপি)। এটি বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়াতে সাহায্য করবে।
এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি চীন ও পাকিস্তান একটি ঋণ চুক্তি সই করে। চুক্তি অনুযায়ী বেইজিংয়ের কাছ থেকে প্রথম ধাপে ৭০ কোটি ডলার পেয়েছে ইসলামাবাদ।
অপরদিকে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল তথা আইএমএফের কাছ থেকে ৯০০ কোটি ডলোরর ঋণ পাওয়ার চেষ্টা করছে পাকিস্তান।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

১৩০ কোটি ডলারের একটি ঋণ প্যাকেজের আওতায় এই টাকা দেওয়া হয়েছে।

বিপর্যস্ত পাকিস্তানকে আরও ৫০ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দিয়েছে চীন

আপডেট সময় : ০৫:২৭:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩

চীনের কাছ থেকে আবারও ঋণের টাকা পেল পাকিস্তান। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটি পাকিস্তানকে আরও ৫০ কোটি ডলার দিয়েছে। ১৩০ কোটি ডলারের একটি ঋণ প্যাকেজের আওতায় এই টাকা দেওয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, বিপর্যস্ত পাকিস্তানের অর্থনীতিতে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ স্থিতিশীল করার ক্ষেত্রে এই ঋণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এর আগে গত মাসের শেষ দিকে পাকিস্তানকে ৭০ কোটি ডলার ঋণ দেয় চীন।
এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী ইসহাক দার শুক্রবার তার টুইটার হ্যান্ডেলে বলেছেন, চীনের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক অব চায়না লিমিটেড (আইসিবিসি) সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছে।
তিনি আরও বলেন, ‘এই ঋণ সুবিধাটি তিন কিস্তিতে হস্তান্তর করা হবে। প্রথম কিস্তির ৫০ কোটি ডলার পেয়েছে স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তান (এসবিপি)। এটি বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়াতে সাহায্য করবে।
এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি চীন ও পাকিস্তান একটি ঋণ চুক্তি সই করে। চুক্তি অনুযায়ী বেইজিংয়ের কাছ থেকে প্রথম ধাপে ৭০ কোটি ডলার পেয়েছে ইসলামাবাদ।
অপরদিকে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল তথা আইএমএফের কাছ থেকে ৯০০ কোটি ডলোরর ঋণ পাওয়ার চেষ্টা করছে পাকিস্তান।