ঢাকা ০১:২৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রংপুরে ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬৫ বছরের বৃদ্ধ আটক

রংপুরের গংগাচড়ায় চার বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১২ মার্চ) নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। শিশুটি ভর্তি আছে হাসপাতালে।
গঙ্গাচড়া থানার ওসি দুলাল মিয়া জানান, উপজেলার বড়বিল ইউনিয়নের বাগপুর চোত্তাপাড়া এলাকায় ৫ মার্চ প্রতিবেশী দাদা সম্পর্কের গোলাম মোস্তফা চারবছরের ওই শিশুটিকে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় শিশুটির চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। এসময় শিশুটির বাবা ও মা বাড়িতে ছিলেন না। কৃষি কাজের জন্য জমিতে ছিলেন। এদিকে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে অভিযুক্তের পরিবার। শিশুটির শারীরিক সমস্যা হলে শনিবার (১১ মার্চ) বিকেলে পরিবারের পক্ষ থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন রেখেছেন। সেখান থেকে পুলিশকে খবর দেয়া হলে রোববার সন্ধ্যায় মোস্তফাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় মামলা রেকর্ড প্রক্রিয়াধীন আছে। মামলা রেকর্ড করে মোস্তফাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে। শিশুটিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
শিশুটির বাবা- মা ও পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, একজন শিশুর ওপর পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে মোস্তফা। তার যেন ফাঁসি হয়।
তবে আটক হওয়া মোস্তফার বোনের দাবি, পরিকল্পিতভাবে ভাইকে ফাঁসানোর জন্য এই ঘটনা সাজানো হয়েছে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

রংপুরে ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬৫ বছরের বৃদ্ধ আটক

আপডেট সময় : ০৫:১৪:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মার্চ ২০২৩

রংপুরের গংগাচড়ায় চার বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১২ মার্চ) নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়। শিশুটি ভর্তি আছে হাসপাতালে।
গঙ্গাচড়া থানার ওসি দুলাল মিয়া জানান, উপজেলার বড়বিল ইউনিয়নের বাগপুর চোত্তাপাড়া এলাকায় ৫ মার্চ প্রতিবেশী দাদা সম্পর্কের গোলাম মোস্তফা চারবছরের ওই শিশুটিকে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় শিশুটির চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। এসময় শিশুটির বাবা ও মা বাড়িতে ছিলেন না। কৃষি কাজের জন্য জমিতে ছিলেন। এদিকে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে অভিযুক্তের পরিবার। শিশুটির শারীরিক সমস্যা হলে শনিবার (১১ মার্চ) বিকেলে পরিবারের পক্ষ থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন রেখেছেন। সেখান থেকে পুলিশকে খবর দেয়া হলে রোববার সন্ধ্যায় মোস্তফাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় মামলা রেকর্ড প্রক্রিয়াধীন আছে। মামলা রেকর্ড করে মোস্তফাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে। শিশুটিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
শিশুটির বাবা- মা ও পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, একজন শিশুর ওপর পাশবিক নির্যাতন চালিয়েছে মোস্তফা। তার যেন ফাঁসি হয়।
তবে আটক হওয়া মোস্তফার বোনের দাবি, পরিকল্পিতভাবে ভাইকে ফাঁসানোর জন্য এই ঘটনা সাজানো হয়েছে।