ঢাকা ১২:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বাংলাদেশ আয়ারল্যান্ড সিরিজ-২৩

টাইগারদের সিরিজ জয়ের মিশন আজ

প্রথম ম্যাচে রানের পাহাড় গড়ে ওয়ানডে ইতিহাসে রেকর্ড জয় নিয়ে সিরিজে এগিয়ে গিয়েছে বাংলাদেশ। এবার এক ম্যাচ হাতে রেখে আগ্রাসী ক্রিকেট খেলে সিরিজ নিজেদের পকেটে পুরতে বদ্ধপরিকর তামিম ইকবালের দল।
সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার (২০ মার্চ) দুপুর ২টায় আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। আজ জিতলেই তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাবে স্বাগতিকরা।
প্রথম ওয়ানডে জিতে ফুরফুরে বাংলাদেশ শিবিরে। ব্যাট হাতে বিস্ফোরক ব্যাটিং আর বল হাতে আগ্রাসী বোলিং; তাতেই বধ আয়ারল্যান্ড। বাংলাদেশ আগ্রাসী মনোভাবে ক্রিকেট খেলেই নিজেদের জয় নিশ্চিত করতে চায়।
প্রথম ওয়ানডেত শিষ্যদের পারফরম্যান্স টেনে স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ ইঙ্গিত দিলেন আগ্রাসী ক্রিকেটের, ‘আমি মনে করি দলের সব সদস্যদের দ্বারা এটি চমৎকার প্রচেষ্টা (জয়)। বিশেষ করে তাওহিদ ও সাকিব, তারপর মুশফিক এবং ইয়াসিরও। তাদের আক্রমণাত্মক মনোভাব ছিল চমৎকার। আমরা এই মুহূর্তে আমাদের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট প্রদর্শন করছি। আশা করি আগামীকালও আমরা একই কাজ করব।
প্রথম ম্যাচের জয়টা আমাদের অনেক আত্মবিশ্বাস দেবে। আমরা এখন ওদের বিপক্ষে কিভাবে জিততে হয়, সে অভিজ্ঞতা আছে। এটা দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ’-আরও যোগ করেন হেরাথ।
সিলেটে ব্যাটিংবান্ধব উইকেটে বাংলাদেশ নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দেখিয়েছে। নিজেদের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেটের ছিলো চমৎকার প্রদর্শনী। এবার প্রয়োজন শুধু ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এগিয়ে যাওয়া।
আইরিশরা প্রথম ম্যাচে ১৮৩ রানের বড় ব্যবধানে হারলেও তারা ছেড়ে কথা বলবে না। চোখে চোখ রেখে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন কোচ হেনরিক মালান।
‘অবশ্যই, এটি ফলাফলের বিষয়ে। আমরা বুঝি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মানেই জয়-পরাজয়। আমাদের খেলায় এগিয়ে যাওয়ার জন্য এটাই পথ। আমি মনে করি আপনি যদি গত ১২ মাসের দিকে তাকান, আমরা যেভাবে খেলার চেষ্টা করেছি তাতে কিছু বড় দলকে হারানোর সুযোগ পেয়েছি। আমরা [টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছি।
প্রথম ম্যাচ খেলে আইরিশদের কন্ডিশন ইতিমধ্যে বুঝে ওঠার কথা। তবে বাংলাদেশ মনোযোগ দিতে চায় নিজেদের ক্রিকেটে। ‘দেখুন, আমি নিশ্চিতওরা ওদের পরিকল্পনা নিয়ে আসবে। আমরা কিন্তু কিছু জিনিস নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। আর সেটা আমাদের পরিকল্পনা’-বলছিলেন হেরাথ।

আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

বাংলাদেশ আয়ারল্যান্ড সিরিজ-২৩

টাইগারদের সিরিজ জয়ের মিশন আজ

আপডেট সময় : ১০:৪৫:০৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মার্চ ২০২৩

প্রথম ম্যাচে রানের পাহাড় গড়ে ওয়ানডে ইতিহাসে রেকর্ড জয় নিয়ে সিরিজে এগিয়ে গিয়েছে বাংলাদেশ। এবার এক ম্যাচ হাতে রেখে আগ্রাসী ক্রিকেট খেলে সিরিজ নিজেদের পকেটে পুরতে বদ্ধপরিকর তামিম ইকবালের দল।
সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার (২০ মার্চ) দুপুর ২টায় আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। আজ জিতলেই তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাবে স্বাগতিকরা।
প্রথম ওয়ানডে জিতে ফুরফুরে বাংলাদেশ শিবিরে। ব্যাট হাতে বিস্ফোরক ব্যাটিং আর বল হাতে আগ্রাসী বোলিং; তাতেই বধ আয়ারল্যান্ড। বাংলাদেশ আগ্রাসী মনোভাবে ক্রিকেট খেলেই নিজেদের জয় নিশ্চিত করতে চায়।
প্রথম ওয়ানডেত শিষ্যদের পারফরম্যান্স টেনে স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ ইঙ্গিত দিলেন আগ্রাসী ক্রিকেটের, ‘আমি মনে করি দলের সব সদস্যদের দ্বারা এটি চমৎকার প্রচেষ্টা (জয়)। বিশেষ করে তাওহিদ ও সাকিব, তারপর মুশফিক এবং ইয়াসিরও। তাদের আক্রমণাত্মক মনোভাব ছিল চমৎকার। আমরা এই মুহূর্তে আমাদের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট প্রদর্শন করছি। আশা করি আগামীকালও আমরা একই কাজ করব।
প্রথম ম্যাচের জয়টা আমাদের অনেক আত্মবিশ্বাস দেবে। আমরা এখন ওদের বিপক্ষে কিভাবে জিততে হয়, সে অভিজ্ঞতা আছে। এটা দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ’-আরও যোগ করেন হেরাথ।
সিলেটে ব্যাটিংবান্ধব উইকেটে বাংলাদেশ নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দেখিয়েছে। নিজেদের ব্র্যান্ড অব ক্রিকেটের ছিলো চমৎকার প্রদর্শনী। এবার প্রয়োজন শুধু ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এগিয়ে যাওয়া।
আইরিশরা প্রথম ম্যাচে ১৮৩ রানের বড় ব্যবধানে হারলেও তারা ছেড়ে কথা বলবে না। চোখে চোখ রেখে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন কোচ হেনরিক মালান।
‘অবশ্যই, এটি ফলাফলের বিষয়ে। আমরা বুঝি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মানেই জয়-পরাজয়। আমাদের খেলায় এগিয়ে যাওয়ার জন্য এটাই পথ। আমি মনে করি আপনি যদি গত ১২ মাসের দিকে তাকান, আমরা যেভাবে খেলার চেষ্টা করেছি তাতে কিছু বড় দলকে হারানোর সুযোগ পেয়েছি। আমরা [টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছি।
প্রথম ম্যাচ খেলে আইরিশদের কন্ডিশন ইতিমধ্যে বুঝে ওঠার কথা। তবে বাংলাদেশ মনোযোগ দিতে চায় নিজেদের ক্রিকেটে। ‘দেখুন, আমি নিশ্চিতওরা ওদের পরিকল্পনা নিয়ে আসবে। আমরা কিন্তু কিছু জিনিস নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। আর সেটা আমাদের পরিকল্পনা’-বলছিলেন হেরাথ।