ঢাকা ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জমে উঠেছে শার্শার বেলতলা আমের বাজার

জমে উঠেছে দক্ষিণ বঙ্গের শার্শার বেলতলা আমের বাজার।এবছর আমের বাম্পার ফলন হওয়াতে যশোর ও সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসছে বিভিন্ন জাতের আম,সাথে সাথে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসছে পাইকাররা।

গত বছর উল্লেখযোগ্য তেমন কোন ঝড়ের কবলে পড়তে হয়নি আম চাষিদের,আমের দামও বেশি ছিলো যার ফলে সাবলম্বী হয়েছে আম চাষিরা।তবে এবারে চিত্র ভিন্ন,এবছর আম ভাঙ্গার প্রথম দিকে কালবৈশাখী ঝড়ে সাতক্ষীরার কয়রা,ঝাউডাঙ্গা ও কলারোয়া এবং যশোরের মনিরামপুর,ঝিকরগাছা ও শার্শা উপজেলার কিছু অংশে আমের ব্যাপক খয়ক্ষতি হয়েছে।এবছর মে মাসের ৪ তারিখ হতে যশোরের শার্শা ও সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আম ভাঙ্গার তারিখ নির্ধারন করা হয়েছে।ফলে আমচাষী/ বাগান মালিকেরা একযোগে আম ভাঙ্গতে শুরু করেছে ফলে চাহিদার তুলনায় যোগান বেশি হওয়াতে আমের মন প্রতি বাজার মূল্য প্রকার ভেদে ১০০০ থেকে ২২০০ টাকা পর্যন্ত হয়েছে।বর্তমানে আমের বাজার মূল্য হ্রাস হওয়াতে খুষিনন আমচাষীরা।শার্শার টেংরা গ্রামের আমচাষী আবুল কাসেম ও সাবিরুল বলেন বর্তমান আমের বাজার মূল্য গতবছরের চেয়ে কম তাই লোকসানে পড়তে হবে আম চাষিদের।তবে আসছে দিন গুলোতে যখন হিমসাগর,লেংড়া ও আম্রপালি ভাঙা শুরু হবে তখনে আমের বাজার বাড়তে পারে বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ বিরতি চুক্তিতে বাধা দেয়ার অভিযোগ

জমে উঠেছে শার্শার বেলতলা আমের বাজার

আপডেট সময় : ০৭:০৪:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ মে ২০২৩

জমে উঠেছে দক্ষিণ বঙ্গের শার্শার বেলতলা আমের বাজার।এবছর আমের বাম্পার ফলন হওয়াতে যশোর ও সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসছে বিভিন্ন জাতের আম,সাথে সাথে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসছে পাইকাররা।

গত বছর উল্লেখযোগ্য তেমন কোন ঝড়ের কবলে পড়তে হয়নি আম চাষিদের,আমের দামও বেশি ছিলো যার ফলে সাবলম্বী হয়েছে আম চাষিরা।তবে এবারে চিত্র ভিন্ন,এবছর আম ভাঙ্গার প্রথম দিকে কালবৈশাখী ঝড়ে সাতক্ষীরার কয়রা,ঝাউডাঙ্গা ও কলারোয়া এবং যশোরের মনিরামপুর,ঝিকরগাছা ও শার্শা উপজেলার কিছু অংশে আমের ব্যাপক খয়ক্ষতি হয়েছে।এবছর মে মাসের ৪ তারিখ হতে যশোরের শার্শা ও সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আম ভাঙ্গার তারিখ নির্ধারন করা হয়েছে।ফলে আমচাষী/ বাগান মালিকেরা একযোগে আম ভাঙ্গতে শুরু করেছে ফলে চাহিদার তুলনায় যোগান বেশি হওয়াতে আমের মন প্রতি বাজার মূল্য প্রকার ভেদে ১০০০ থেকে ২২০০ টাকা পর্যন্ত হয়েছে।বর্তমানে আমের বাজার মূল্য হ্রাস হওয়াতে খুষিনন আমচাষীরা।শার্শার টেংরা গ্রামের আমচাষী আবুল কাসেম ও সাবিরুল বলেন বর্তমান আমের বাজার মূল্য গতবছরের চেয়ে কম তাই লোকসানে পড়তে হবে আম চাষিদের।তবে আসছে দিন গুলোতে যখন হিমসাগর,লেংড়া ও আম্রপালি ভাঙা শুরু হবে তখনে আমের বাজার বাড়তে পারে বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা।